পাসওয়ার্ড নিরাপদ রাখবেন যেভাবে

 পাসওয়ার্ড নিরাপদ রাখবেন যেভাবে

সাবধানের যে মার নাই, তা বুঝবেন অসাবধান হলে। ছবি: পেক্সেলস

প্রত্যেক বছর ওই একই আলোচনা। পাসওয়ার্ড বদলাও। নইলে অ্যাকাউন্ট হ্যাক হবে, তথ্য হাতিয়ে নেবে, ইত্যাদি ইত্যাদি। আপাতদৃষ্টিতে এসব আলোচনা ‘আমার জন্য নয়’ বলে মনে হতে পারে। তবে সাবধানের যে মার নাই, তা বুঝবেন সাবধান না হলে।

কীভাবে বুঝবেন আপনার পাসওয়ার্ড ফাঁস হয়েছে?

হ্যাভ আই বিন পনড নামের একটি ওয়েবসাইট আছে। বেশ কাজের। ওয়েবসাইটটিতে ঢুঁ মেরে আপনার ই-মেইল দিলেই জানিয়ে দেবে, কোনো তথ্য ফাঁসের ঘটনায় আপনার ইমেইল ছিল কি না। নতুন ইমেইল ঠিকানা না হলে, ধরে নেওয়া যায়, কোনো না কোনো সময়ে হ্যাক হয়েছিল।

তবে কি পাসওয়ার্ড ম্যানেজার ব্যবহার করা উচিত?

এখন পর্যন্ত আপনার অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখার সবচেয়ে নিরাপদ পদ্ধতি হলো, পাসওয়ার্ড ম্যানেজার সফটওয়্যার ব্যবহার করে ইচ্ছামতো কঠিন পাসওয়ার্ড ঠিক করে দেওয়া। প্রথম সারির সব ওয়েব ব্রাউজারেই পাসওয়ার্ড সংরক্ষণের সুবিধা আছে। নতুন কোথাও পাসওয়ার্ড দিলেই সংরক্ষণের বার্তা দেখাবে। আর যদি আরও শক্তিশালী সেবা চান তো বিনা মূল্যে ওয়ান পাসওয়ার্ড বা লাস্টপাস ইনস্টল করে ব্যবহার করতে পারেন। সব ধরণের প্ল্যাটফর্মে এগুলো কাজ করে।

এখানে ক্লিক করে সর্বশেষ প্রযুক্তি সম্পর্কে জানুন

একাধিক ওয়েবসাইটে এক পাসওয়ার্ড?

ব্যবহারকারীরা সবচেয়ে ভয়ঙ্কর যে কাজটি করেন তা হলো, পাসওয়ার্ড পুনর্ব্যবহার করা। আপনার এক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড কেউ জেনে যাওয়া মানে একাধিক ওয়েবসাইটে আপনার অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ পাওয়া। এমনটা করা কখনোই উচিত না। কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি কোনো সমস্যা না, চাইলেই তা করা যায়। সমস্যা হলো, আধুনিক জীবনে ব্যবহৃত শতশত পাসওয়ার্ড মনে রাখা। ফলাফল, একই পাসওয়ার্ড মানুষ বারবার ব্যবহার করে থাকে।

আমার পাসওয়ার্ড কি নিরাপদ?

আপনি চাইলে অথি নামের একটি সফটওয়্যার ব্যবহার করে এবং টু-ফ্যাকটর অথেনটিকেশন চালু করে আপনার অ্যাকাউন্ট আরও নিরাপদ করতে পারেন। আবার হ্যাভ আই বিন পনড ওয়েবসাইট থেকে হ্যাকিং কার্যক্রম পর্যবেক্ষণও করতে পারেন।

পাসওয়ার্ড মনে রাখা নিয়ে দুশ্চিন্তা করা বন্ধ করে দিন। সত্যি বলতে, আপনি যদি আপনার পাসওয়ার্ড মনে রাখতে পারেন, তবে হয়তো সে পাসওয়ার্ড যথেষ্ট শক্ত না।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

    আরও পড়ুন

    মন্তব্য করুন

    Your email address will not be published.